আজ- শুক্রবার, ২৯শে অক্টোবর, ২০২১। ১৩ই কার্তিক, ১৪২৮

শিরোনাম

অতিরিক্ত কাজের চাপে মৃত্যু হলে সেটা শিল্প দুর্ঘটনা হিসেবে বিবেচিত হবে!!!

কিম (৩৬ বছরের) নামের একজন কুরিয়ার বহনকারী শ্রমিকের মৃত্যু, যিনি সিউলের হানজিন লজিস্টিকস দংদেমুন শাখায় কাজ করতেন, তার মৃত্যুর ৫ মাস পরে এটি একটি শিল্প দুর্ঘটনা হিসেবে বিবেচিত হয়।

 

২২ মার্চ, দা ন্যাশনাল কুরিয়ার ইউনিয়ন অফ দা কোরিয়ান কনফেডারেশন ট্রেড ইউনিয়ন ঘোষণা করে, কোরিয়ান শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ ও কল্যাণ কমিশনের পেশাগত রোড নির্ধারণের একটি কমিটি স্বীকার করে যে কিমের মৃত্যু এবং তার কাজের মধ্যে প্রাসঙ্গিকতা রয়েছে এবং এই মৃত্যুকে ১৯ মার্চ শিল্প দুর্ঘটনা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে।

 

উল্লেখ্য যে, ২০২০ সালের ১২ অক্টোবর চুসোকের ছুটির পরে কিমকে তার বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। মৃত্যুর কারণ হ’ল ইস্কেমিক হার্ট ডিজিজ, খুব বেশি কাজ করে মৃত্যুর অন্যতম লক্ষণ এটি।

 

কুরিয়ার্স ইউনিয়ন যুক্তি দিয়েছিল যে কিমের মৃত্যু অত্যধিক কাজের চাপের কারণে হয়েছিল, যেহেতু সে সময় তিনি মাত্র ৩৬ বছর বয়সী ছিলেন এবং তিনি কোন পূর্ববর্তী রোগেও ভুগছিলেন না । মৃত্যুর আগে, গিম তার সহকর্মীদের কাছে এক বার্তায় অভিযোগ করেছিলেন, “আমি ৪২০ টি পার্সেল লোড করেছি,” “আমি যখন কাজ ছেড়ে যাব তখন সকাল ৫ টা হবে,” এবং “গতকালও দুপুর ২ টা পর্যন্ত কাজ করেছি।”

 

সূত্র: The Kyunghyang Shinmun

এই রকম আরও খবর

সর্বশেষ খবর